রেসিপি

ফ্রাইড রাইস হবে চাইনিজ রেস্টুরেন্ট স্টাইলে

উপকরণ

  • ১ কাপ ‏চিনিগুড়া চাল
  • ২০০ গ্রাম ‏চিংড়ি মাছ/ হাড় ছাড়া মুরগীর মাংস
  • ১/২ কাপ ‏বাধা কপি/ চায়না কপি কুচি
  • ১/২ কাপ ‏গাজর কুচি
  • ১/২ কাপ ‏ক্যাপসিকাম কুচি
  • ১/২ কাপ ‏পেয়াজ কুঁচি
  • ৪-৫ টি ‏কাচা মরিচ ফালি
  • ২ টেবিল চামচ ‏পেয়াজ কলি কুচি
  • ১/৪ চা চামচ ‏আদা বাটা
  • ১/৪ চা চামচ ‏রসুন বাটা
  • ২ টি ‏ডিম
  • ১/২ চা চামচ ‏গোল মরিচ গুড়া
  • ১ টেবিল চামচ ‏সয়া সস
  • ২ টেবিল চামচ ‏তেল/বাটার
  • পরিমানমত ‏লবণ
  • পরিমানমত ‏চিনি (ঐচ্ছিক)

প্রস্তুত-প্রনালী:

১. চাল ভালভাবে ধুয়ে নিয়ে পানি ঝরিয়ে নিন। একটি পাত্রে পরিমানমত পানি নিয়ে গরম হতে দিন। পানি ফুটতে শুরু করলে ১ চা চামচ তেল ও স্বাদমত লবণ দিয়ে সেদ্ধ করুন। ৯০% সেদ্ধ হয়ে আসলে নামিয়ে পানি ঝরিয়ে ঠান্ডা করুন। চাইলে কমপক্ষে ২ ঘন্টার জন্য ফ্রিজে রেখে দিতে পারেন। সবচেয়ে ভাল হয় আগের দিন রান্না করা ভাত নিলে।

২. একটি বড় সাইজের পাত্র নিন। এর মধ্যে তেল বা বাটার দিন। তেল গরম হয়ে এলে এতে আদা-রসুন বাটা দিয়ে একটু ভেজে নিন। এরপর চিংড়ি মাছগুলো ও লবণ দিয়ে ২-৩ মিনিটের মত ভেজে নিন। চিংড়ির পরিবর্তে মুরগির মাংসও ব্যাবহার করা যাবে। ভাজা হলে পেয়াজের কলি বাদে বাকি সবজিগুলো একে একে দিয়ে ভেজে নিন। শক্ত সবজিগুলো আগে ভাজবেন।

৩. এবার সবজিগুলো একপাশে সরিয়ে রেখে দুটো ডিম সামান্য লবণ দিয়ে ফেটে দিয়ে দিন। অনবরত নেড়ে ডিমের ঝুরি বানিয়ে নিন। তারপর সবজির সাথে নেড়েচেড়ে মিশিয়ে নিন।

৪. তারপর রান্না করা ভাত দিয়ে এর সাথে গোলমরিচ গুড়া ও সয়াসস দিয়ে মিশিয়ে নেড়ে দিন। প্রয়োজন মনে হলে লবণও দিয়ে নিন। মনে রাখবেন, সয়া সসেও কিছু লবণ আছে। স্বাদমত কিছু চিনিও দিতে পারেন। ২-৩ মিনিট অনবরত নেড়েচেড়ে ভাজতে থাকুন ভাত-এর সাথে সবকিছু মিশে না যাওয়া পর্যন্ত। যখন সবকিছু মিশে যাবে ও ভাত ১০০% সেদ্ধ ও ভাজা হয়ে যাবে তখন নামিয়ে উপর থেকে লেবুর রস ও পেয়াজ কলি ছড়িয়ে দিয়ে গরম গরম পরিবেশন করুন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button