কোন মেয়ের সাথে প্রথম দেখা করার সময় এই ১০টি বিষয় খেয়াল রাখুন

এই ব্লগ যারা পড়ছেন তাদের অনেকেই হয়ত প্রেম করেছেন কিংবা ভবিষ্যতে করবেন কিংবা হবু স্ত্রীর সাথে প্রথমবারের মত দেখা করবেন। সেই দেখা করার জন্য হলেও একটা পূর্ব প্রস্তুতির ব্যাপার রয়েই যায়। সেই সাথে কিঞ্চিৎ মানসিক টেনশন থাকেই ভেতরে ভেতরে। কিংবা আপনার প্রিয় মানুষটিকে ইমপ্রেস করার জন্য হলেও আলাদা কিছু ব্যাপারের দিকে খেয়াল রাখতে হবে আপনাকে। নিচে ১০টি জিনিস খেয়াল রাখার ব্যাপারে দেওয়া হলোঃ

১। দেখা করার পূর্ব শর্ত হচ্ছে তার আগে আপনাকে একদম পরিপাটি হয়ে যেতে হবে। সবেচেয়ে ভালো হয় ফুল হাতা শার্ট আর প্যান্ট। খেয়াল রাখতে হবে শার্ট যেন আয়রন করা থাকে আর পায়ে লোফার বা কনভারস হলেও ভালো। না থাকলে বন্ধুদের কাছ থেকে ধার করে হলেও নেন।😂

২। পারফিউম অবশ্যই ইউজ করবেন তবে কড়া পারফিউম এভয়েড করবেন। আর ঠোঁট ফেটে থাকলে ভ্যাসলিন বা লিপজেল ইউজ করে যাবেন অবশ্যই। আরেকটা কথা, পারফিউমের ঘ্রাণ হালকা হলে ভালো। ভুলেও আবার আতর মাইরা দিয়া বসবেন না। আরেকটা গুরুত্বপূর্ণ কথা, আমি জানি আপনি দাঁত ব্রাশ করেন কিন্তু তবুও অনেকেই হয়ত মুখের দুর্গন্ধে ভুগেন, সেজন্য মাউথ ফ্রেশনার ইউজ করতে পারেন সেক্ষেত্রে কথা বলার সময় আলাদা একটা কনফিডেন্স পাবেন। আর যদি ধূমপায়ী হোন অন্তত এদিনের জন্য সিগারেটকে ভুলে যান।😆

৩। আমরা অনেকেই ঘামের সমস্যায় ভুগি, এটা সাধারন ব্যাপার। তবে চেষ্টা করবেন শরীরে ঘাম হবার কারন বিশেষ করে ঢাকা শহরে কিংবা গরমের দিনে রাস্তায় বের হলে শরীর ঘামতেই থাকে তারউপর প্রথমবার দেখা করার মানসিক উত্তেজনা ঘামিয়ে দেয় তাই বের হবার আগে ডিওড্রেন্ট ইউজ করবেন কিংবা ট্যালকম পাউডার ইউজ করবেন তাতে ঘাম কম হবে অনেক। 😉

৪। এবার আসা যাক সবচেয়ে ইম্পরট্যান্ট টপিকে – মেসেঞ্জার, হোয়াটসএপ, ফোনের মেসেজ। আগে জীবনে যাই করসেন তো করসেন এইবার বাসা থেকে বের হবার আগে যার যার সাথে বেশি চ্যাট করেছেন সব কনভারসেশন ডিলেট করে তারপর বের হোন। বলা তো যায় না যদি হটাত ফোনটা চায়?? আরও ভালো হয় ফোনে কোন মোবাইল ডাটা প্যাক তথা এম্বি কিনা না থাকলে।😜

৫। ভাই আর যাই করেন,  প্রথমবার দেখা করার সময় টাইমের দিকে বিশেষ খেয়াল রাখুন। এমন যেন না হয় সে আপনার জন্য বসে বসে ওয়েট করছে পার্কে কিংবা রেস্টুরেন্টে। এই ভুল করেছেন তো মরেছেন আর তবুও যদি লেট হয়েই যায় কপাল খারাপ তবে যেয়েই তিন বার সরি সরি সরি বলতে ভুল করবেন না, যদি আগে থেকেই কথা বলে ফ্রি থাকেন তবে পারলে কানে ধরার ট্রাই করুন কাজে দিবে।😜

৬। প্রথমবার দেখা করার জন্য আসছেন সেই প্রথম দেখায় ফুল/চকলেট কিনে নিয়ে যান। মেয়েরা আর কিছু পছন্দ করুক বা না করুক ফুল বা চকলেট পেলে ওদের মন এখানেই খুশি হয়ে যায়। চকলেট কেনার মধ্যে কিপটামি করবেন না প্লিজ, দুই তিন টাকার চকেলট না নিয়ে বরং ভালো মানের দামের মধ্যে কয়েক জাতীয় চকলেট নিয়ে যান আর সাথে ফুল নিতে চাইলে দেখতে সুন্দর ভালো মানের ফুল দেবার চেষ্টা করুন।😍

৭। যদি পার্কে দেখা করেন তখন একদম সামনে যেয়েই দাঁড়িয়ে থাকা অবস্থায় ফুল চকলেট দিয়ে ঠাস করে বেঞ্চে বসে পইরেন না, সে মানে আপনার উনি যদি বলে তবেই বসুন তার আগে মোটেই না। আর বসার সময় যতটা সম্ভব একটু দূরে মানে দূরত্ব বজায় রেখে বসুন।😀

৮। আর হ্যা, প্রথম দেখায় একদম ঘা ঘেঁসে ভুলেও বসবেন না। আরও কথা বলে দেখা হয়ে আরও উনার সাথে ফ্রি হয়ে পরে সারাজীবন পাবেন ক্লোজ হয়ে বসার, এখুনি তাড়াহুড়ো করবেন না। আর কথা বলার সময় অবশ্যই অবশ্যই একদম তার চোখে চোখ রেখে কথা বলবেন এটা জরুরি একটা বিষয়। আপনার চোখের চাহুনি দিয়েও ইম্প্রেস করলে করেও ফেলতে পারেন।😀

৯। এইবার আসা যাক আরেক খুবি দরকারি টপিকে, টপিকের নাম প্রশংসা টপিক। আপনার প্রিয়সীকে যেমন ই দেখাক তাকে বলুন – তোমাকে/আপনাকে খুব সুন্দর লাগছে। ব্যাস এতটুকুই আর বেশি বাড়িয়ে বলবেন না। পরে আরও আবার যখন দেখা হবে তখন সব বইলেন তোমাকে এটায় ওটায় মানে তোমার চুল, তোমার জামা, তোমার কপালের টিপ, হাতের চুড়ি… ব্লা ব্লা ব্লা… সুন্দর লাগছে। তখন শুধু প্রশংসা উপরে রাখবেন।😎

১০। আপনার উনি যখন কথা বলবে তখন চুপচাপ শুনুন ভুলেও অন্যদিকে মনোযোগ দিবেন না ভাই। তবে একদম চুপচাপ হয়ে যাবেন না তাহলে ভাববে আপনি তার কথায় মনোযোগ দিচ্ছে না সেজন্য তার কথা শুনার সময় মাঝমদ্ধে – হ্যাঁ, হুম, আচ্ছা এইসব বলুন। আর আরেকটা কথা ভুলেও তর্কে যাবেন না, তর্কে গেছেন তো মরছেন। আপনার উনি যদি বলে সূর্য পশ্চিম দিকে উঠে তবে আপনিও তার কথা মেনে নিয়ে হ্যাঁ সূচকে মেনে নিয়ে জানান সূর্য পশ্চিম দিকেই উঠে।😁

বোনাস পয়েন্টঃ ফোন অবশ্যই সাইলেন্ট করে যাবেন। কল আসলে খুব বেশি প্রয়োজন না পরলে রিসিভ করার দরকার নেই। আর ভুলেও অযথাই আপনার উনার সামনে বারবার ফোন গুতাগুতি করবেন না কারন তাতে উনি ভাববে আপনি তার সাথে থেকে বোরিং ফিল হচ্ছেন।

— হ্যাপি ডেটিং 😊

Leave a Comment