পরীক্ষার আগে এই খাবারগুলো খাওয়া থেকে বিরত থাকুন

পরীক্ষার আগে শুধু পরীক্ষার পড়া নিয়ে ভাবলেই চলবেনা সেই সাথে আমাদের শরীর ও মনকেও পরীক্ষার জন্য প্রস্তুত হতে হবে। পর্যাপ্ত ঘুম না হওয়ার ফলে আমাদের কর্মক্ষমতা বাধাগ্রস্ত হতে পারে – যার কারণ সবাই বলে পরীক্ষার আগে যথেষ্ঠ পরিমান ঘুমাতে। এখন অনেকেই ভাবতে পারেন এখানে খাবারের সাথে পরীক্ষার কি সম্পর্ক ? আপনি কি জানেন যে কিছু খাবার পরীক্ষার সময় আমাদের স্মৃতি শক্তি উন্নত করতে সাহায্য করতে পারে, এবং কিছু খাবার আমাদের স্মৃতি শক্তিতে বাধা দিতে পারে? সুতরাং চলুন জেনে নেই পরীক্ষার আগে কোন কোন খাবার এরিয়ে চলবেন।

১. মিষ্টি জাতীয় খাবার

যখন আপনি চিনিযুক্ত খাবার খান, আপনি একটি চিনির স্পাইক পাবেন, যা আপনাকে আরও সক্রিয় বা উত্তেজিত মনে করাবে। যখনি আপনি খাওয়া শেষ করবেন তার একটু পরেই আপনি ক্লান্ত বোধ, ক্ষুধার্ত বোধ করবেন এবং আরও বেশি মি

ষ্টির আকাঙ্ক্ষা জাগবে আপনার মনে। পরীক্ষা্র আগে ক্যান্ডি বা সোডা খেয়ে

নিজেকে পূর্ন করবেন না, তাহলে সেগুলো পরিক্ষার মাঝা মাঝি সময় আপনার মনযোগ নষ্ট করবে।

যদি আপনার একান্তই মিষ্টি খেতে ইচ্ছা করে তাহলে আপনি সেগুলোর পরিবর্তে প্রাকৃতিক মিষ্টি খেতে পারেন যেগুলো আপনার শর্ট টাইম মেমরি উন্নতি করতে সাহায্য করবে। যেমন ব্লুবেরি, স্ট্রবেরি, এবং কলা সাধারণত এই খাবার গূলো শর্করা দিয়ে পূর্ন যা পরীক্ষায় আপনার পার্ফর্মেন্স ভাল করতে সাহায্য করবে।

২. ফ্যাটি বা চর্বি যুক্ত খাবার

আমরা সবাই জানি যে আরো এক ধরনের খাবার আছে যা আমাদের পক্ষে ভাল নয়, কিন্তু তবুও আমরা সেই খাবার থেকে দূরে থাকতে পারিনা। কিন্তু আপনি জানেন কি আতিরিক্ত ফ্যাট যুক্ত খাবার মস্তিষ্কের সংকোচনের সৃষ্টি করতে পারে অর্থাৎ আমাদের স্মৃতি শক্তিত কমিয়ে দিতে পারে এবং তা খুব দ্রুত। ফ্যাটি খাবারগুলি খাওয়ার পরেও আমরা ক্ষুধার্ত অনুভব করতে পারি, বিশেষ করে ফাস্ট ফুড যা লবণ দিয়ে পরিপূর্ণ। সুতরাং পরীক্ষার আগে এই খাবার গূলো এরিয়ে চলুন, এবং তার পরিবর্তে, শক্তির মাত্রা বাড়ানোর জন্য ময়দা দিয়ে বানানো খাবার এবং প্রোটিন যুক্ত খাবার  খান।

৩. ক্যাফেইন জাতীয় খাবার

আপনি জানেন কি এনার্জি ড্রিংক্স, কফি, এমনকি চকলেটেও  উচ্চ মাত্রার ক্যাফিন থাকতে পারে। এখন প্রায় আমরা সকলেই মনের অজান্তেই ক্যাফেইন খেয়ে থাকি। আমরা মনে করি যে পরীক্ষার আগে কফি, এনার্জি ড্রিংক্স, চকলেট আমাদের সতেজ থাকতে সাহায্য করবে কিন্তু বাস্তবে তার বিপরীদ ঘটে। এক কাপ ব্ল্যাক কফি খাওার পর কিছুটা উপকার হল বলে মনে করলেন, কিন্তু কয়েক কাপ ব্ল্যাক কফি আপনার উপকারের চেয়ে ক্ষতি বেশি করবে। আমরা রাত জাগার জন্য কফি খেয়ে থাকি কিন্তু এটির কারনে ঘুম না আসার পাশাপাশি হৃদস্পন্দনেও বিঘ্নতা আসে। বিশ্বাস করুন, পরীক্ষার হলে যা আপনার সবচেয়ে বেশি দরকার তা হল হৃদস্পন্দন। এগুলো খাওয়ার পরিবর্তে ঠান্ডা পানি খান তাতেই আপনার এনার্জি অনেক বাড়বে এবং পরীক্ষাতেও বেশি মনোযোগী হতে পারবেন।

৪. ভাজা খাবার

অবশেষে, ভাজা খাবার এটি ছাত্রদের জন্য অন্য একটি প্রধানতম খাবার যা এরিয়ে চলা উচিৎ। আমরা সকলেই ভাজা খাবার অনেক পছন্দ করি তাইনা? কিন্তু এই ভাজা খাবার আপনার মস্তিস্কে দীর্ঘমেয়াদি প্রভাব ফেলতে পারে। ভজা খাবারে থাকে প্রচুর চর্বি এবং কোলেস্টেরল, যা আপনার মস্তিষ্কে রক্ত প্রবেশ করতে বাধা প্রদান করে। অতএব মস্তিষ্কের শক্তি হ্রাস এবং কিছুদিন পর আপনি যা পড়েছেন তা সব ভুলে যান। সুতরাং ভাজা খাবার এড়িয়ে চলুন এটি সব চেয়ে মারাত্নক এবং বেশি বেশি ডিম খান।

শেষ কথা

শুধু মাত্র খাবার খেয়ে পরীক্ষা দিতে যাবেন না, একটু পড়াশনা করে পরিক্ষার হলে ঢুকবেন। নইলে দেখবেন আপনার এনার্জি আছে মেধা আছে কিন্তু মাথা পুরোই খালি।

Leave a Comment