বিউটি টিপস

অল্প সময়ে রূপচর্চা হবে ঘরে বসে কাজের ব্যস্ততার মাঝে

পার্লার ছাড়াও ঘরে বসে বিভিন্ন উপায়ে ত্বক সুন্দর, সতেজ ও উজ্জ্বল রাখা যায়

ত্বক ভাল রাখতে ত্বকের যত্ন কিংবা চেহারার সৌন্দর্য ফুটিয়ে তুলতে কমবেশি সবাই রূপচর্চা করে থাকেন। অনেকেই আছেন যারা নিয়মিত পার্লারে গিয়ে বিভিন্ন প্রসাধনী ব্যবহার করে ত্বকের যত্ন নেন, চেহারার উজ্জ্বলতা ধরে রাখেন আবার কেউ কেউ আছেন যারা সময়ের অভাবে পার্লারেই যেতে পারেন না। সারাদিনের নানা কাজের ব্যস্ততায় রোদে-পুড়ে চেহারায় দাগ পড়ে যায়, টান টান ভাব চলে আসে, উজ্জ্বলতা নষ্ট হয়ে যায়… ঘরে বসেই যদি প্রতিদিন নিয়মিত একটু একটু করে রূপচর্চা করেন তাহলে চেহারার উজ্জ্বলতা ভাব ফিরে আসবে, ত্বক হয়ে উঠবে কোমল, সতেজ ও মসৃণ।

 

খুব অল্প সময়ে কিভাবে চেহারার সৌন্দর্যকে ফুটিয়ে তোলা যায় 

নিমপাতাঃ ৫-৬ টা নিম পাতা ও কয়েক ফোঁটা লেবুর রস একসাথে মিশিয়ে ঘন মিশ্রণ তৈরী করুন। এবার এটি মুখে ও ঘাড়ে লাগিয়ে কিছুক্ষণ অপেক্ষা করুন। ১৫-২০ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা পানি দিয়ে ভাল ভাবে পরিস্কার করে ফেলুন। এটি ত্বকের উজ্জ্বলতা বৃদ্ধি করে থাকে।

মধু  পেঁপেঁঃ দুই টুকরো পেঁপেঁ ও দুই চা চামচ মধু একসাথে মিশিয়ে প্যাক তৈরী ব্যবহার করতে পারেন। প্যাকটি মুখে লাগিয়ে ম্যাসেজ করুন এবং ১৫ মিনিট পর মুখ ধুয়ে ফেলুন। ত্বক কোমল ও মসৃণ দেখাবে। এটি শুষ্ক ত্বকের জন্য খুবই উপকারী

অ্যালোভেরাঃ অ্যালোভেরা ত্বকের জন্য খুবই ভালএটি ত্বকে ময়েশ্চরাইজের কাজ করে। অ্যালোভেরার জেল বের করে ত্বকে লাগালে ত্বক মসৃণউজ্জ্বল ও সজীব থাকে। এছাড়া রোদে পোড়া ভাব দূর করতে অ্যালোভেরা জেল ও অর্ধেক লেবুর রস মিশিয়ে পেস্ট তৈরী করে ত্বকে ব্যবহার করতে পারেন। এতে ত্বক গ্লো করবে এবং সতেজ থাকবে। 

গোলাপের পাঁপড়িঃ গোলাপের পাঁপড়ি বেঁটে এর সাথে ২ টেবিল চামচ মধু ও ২ টেবিল চামচ দুধ মিশিয়ে একটি ঘন পেস্ট তৈরী করে রাতে ঘুমানোর আগে মুখে কিছুক্ষণ লাগিয়ে রাখুন। শুকানোর পর মুখ ধুয়ে ফেলুন। ত্বকের উজ্জ্বলতা ও কোমলতা বাড়বে। 

আমলকিঃ প্রতিদিন কাঁচা আমলকি খেলে চেহারার সৌন্দর্য বৃদ্ধি পায় ও এটি শরীরের জন্য অনেক পুষ্টিকর। এছাড়া আমলকি গুঁড়া করে মধু ও দইয়ের সাথে মিশিয়ে ফেস প্যাক হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন। তৈলাক্ত ত্বকের জন্য আমলকি ও গোলাপজল ব্যবহার করতে পারেন

ঠোঁটের যত্নঃ মধুদুধ ও গোলাপের পাঁপড়ি একসাথে মিশিয়ে তুলা দিয়ে ঠোঁটে লাগিয়ে রেখে ১০ মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। ঠোঁটের কালচে ভাব দূর হবে এবং ঠোঁটে গোলাপি আভা চলে আসবে। 

হাতের যত্নঃ গোলাপের পাঁপড়ির সাথে ২ টেবিল চামচ চালের গুঁড়া ও একটি ডিমের কুসুম মিশিয়ে হাতে লাগিয়ে ১০-১৫ মিনিট পর কুসুম কুসুম গরম পানি দিয়ে হাত ধুয়ে ফেলুন। হাত মসৃণকোমল ও উজ্জ্বল দেখাবে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button